নাদাল বলেই সম্ভব!

অবিশ্বাস্য? তা বলাই যায়। আর বয়স ৩৩ হলে তো কথাই নেই। এ বয়সে অমন শট খেলা চাট্টিখানি কথা নয়। লোকটা রাফায়েল নাদাল বলেই সম্ভব! হাল ছাড়তে শেখেননি এ স্প্যানিয়ার্ড। মারিন চিলিচের ব্যাকহ্যান্ড ভলি নেটের ডান পাশের সাইড লাইন পার হয়ে বেরিয়ে যাচ্ছিল। সেটি ফেরাতে নাদাল যা দেখিয়েছেন তা স্রেফ অবিশ্বাস্য। বেসলাইনের ওপাশ থেকে দৌড়ে এসে বলটা কোর্টে পড়ার ভগ্নাংশ সেকেন্ড আগে খেলেছেন ফোরহ্যান্ড শট। বল নেটের পাশ ঘেঁষে বেরিয়ে গিয়ে পড়েছে চিলিচের কোর্টে। ব্যস, শেষ গেমে দুর্দান্ত এ শটে তুলে নেওয়া জয়ে নাদাল পৌঁছে যান ইউএস ওপেনের কোয়ার্টার ফাইনালে।

কাল ছেলেদের এককে চতুর্থ রাউন্ডে চিলিচের বিপক্ষে ৬-৩, ৩-৬, ৬-১, ৬-২ গেমের জয় তুলে নেন নাদাল। শেষ গেমে অবিশ্বাস্য সে শটেই জয় তুলে নেন তিনি। ১৮ গ্র্যান্ডস্লামজয়ী এ তারকা খেলা গ্যালারিতে বসে দেখেছেন গলফ তারকা টাইগার উডস। নাদাল অবিশ্বাস্য শটটি নেওয়ার পর উডসের উল্লাস ছিল দেখার মতো। শেষ আটে জোকোভিচকে এবার দেখা না গেলেও নাদালের সঙ্গে রয়েছেন রজার ফেদেরার।

মেয়েদের এককে কাল চতুর্থ রাউন্ড থেকে ছিটকে পড়েছেন ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন নাওমি ওসাকা। বেলিন্ডা বেনেচিচের কাছে ৭-৫, ৬-৪ গেমে হেরে যান এ জাপানি তারকা। মেয়েদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ওসাকার আর শীর্ষস্থানে থাকছেন না। এ বছর ফ্রেঞ্চ ওপেনজয়ী অ্যাশলে বার্টি উঠে আসবেন শীর্ষস্থানে।