আরো ১৫ কোটি টাকা ঋণ দেবে এসএমই ফাউন্ডেশন

দেশের একটি এসএমই ক্লাস্টারের ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তা এবং সারাদেশের নারী উদ্যোক্তাদের ১৫ কোটি টাকা ঋণ দেবে এসএমই ফাউন্ডেশন।

এটা দেয়া হবে বেসরকারি আর্থিক প্রতিষ্ঠান মাইডাস ফাইন্যান্সিংয়ের মাধ্যমে। 

বাংলাদেশ ব্যাংকের পুনঃঅর্থায়ন কর্মসূচির আওতায় এসএমই ফাউন্ডেশনের ক্রেডিট হোলসেলিং কর্মসূচি সম্প্রসারণের লক্ষ্যে মাইডাস ফাইন্যান্সিংয়ের সঙ্গে আলাদা দু’টি চু্ক্তি সই করে ফাউন্ডেশন।

বৃহস্পতিবার ফাউন্ডেশনের নির্বাহী সভাকক্ষে সংস্থাটির পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সফিকুল ইসলাম এবং মাইডাস ফাইন্যান্সিংয়ের পক্ষে ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুস্তাফিজুর রহমান এসব চুক্তি সই করেন।

চুক্তি অনুযায়ী, আগামী পাঁচ বছরে সারাদেশের উৎপাদন সেবা খাতের নারী উদ্যোক্তারা পাবেন ১০ কোটি টাকা এবং বগুড়া লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং ক্লাস্টারের উদ্যোক্তারা ঋণ পাবেন পাঁচ কোটি টাকা। প্রত্যেক উদ্যোক্তা সর্বনিম্ন এক লাখ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ২৫ লাখ টাকা পর্যন্ত জামানতবিহীন ঋণ নিতে পারবেন।

গত ১০ বছরের ধারাবাহিকতায় এবারও এ ঋণের বিপরীতে গ্রহীতাদের কাছ শতকরা সর্বোচ্চ মাত্র নয় ভাগ সুদ নেয়া হবে। চলতি মূলধন, মূলধনী যন্ত্রপাতি ক্রয়, টেকনোলজি উন্নয়ন ও সিজনাল এ ঋণের মেয়াদ তিন বছর।

এ পর্যন্ত সাতটি চুক্তির আওতায় মাইডাস ফাইন্যান্সিং ঢাকার ধোলাইখাল ও বগুড়া লাইট ইঞ্জিনিয়ারিং ক্লাস্টার এবং তরুণ ২১১ উদ্যোক্তাকে ১০ কোটি ৬৬ লাখ টাকা ঋণ দিয়েছে এসএমই ফাউন্ডেশন।

সম্প্রতি এসএমই ফাউন্ডেশনের ক্রেডিট হোলসেলিং প্রোগ্রাম সম্প্রসারণের লক্ষ্যে এসএমই ফাউন্ডেশনের অনুকূলে ৫০ কোটি টাকার পুনঃঅর্থায়ন তহবিল অনুমোদন করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক এবং এসএমই ফাউন্ডেশনের মধ্যে চুক্তিনামা স্বাক্ষর করা হয়েছে।

গত ১১ বছরে এসএমই ফাউন্ডেশনের ক্রেডিট হোলসেলিং প্রোগ্রামের আওতায় দেশের বিভিন্ন এলাকায় অবস্থিত ৩১টি ক্লাস্টার ও ক্লায়েন্টেল গ্রুপের ১৮৫৭ উদ্যোক্তাকে ১২টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ৯২ কোটি টাকা ঋণ দেয়া হয়। এর মধ্যে ১৩৪৫ জন পুরুষ উদ্যোক্তা এবং বাকি ৫১২ জন নারী উদ্যোক্তা।

যে ১০টি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে ঋণ বিতরণ করা হয় সেগুলো হলো মিউচুয়াল ট্রাস্ট ব্যাংক, এনসিসি ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, ট্রাস্ট ব্যাংক, ব্যাংক এশিয়া, ঢাকা ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক, এনআরবি ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্সিয়াল ব্যাংক, সাউথইস্ট ব্যাংক আর দু’টি আর্থিক প্রতিষ্ঠান হলো মাইডাস ফাইন্যান্সিং আইডিএলসি ফাইন্যান্স।