ত্বক ও চুলের সৌন্দর্যে যেভাবে ব্যবহার করবেন দই

জনপ্রিয় একটি খাবার দই। এ খাবারে প্রচুর পুষ্টি রয়েছে যা স্বাস্থ্যের বিভিন্ন উপকার করে। যেমন- দই খেলে ইমিউন সিস্টেম শক্তিশালী হয়, অস্টিওপোরোসিস থেকে সুরক্ষিত থাকা যায়, হার্টের স্বাস্থ্য উন্নত হয়, পরিপাকতন্ত্রের স্বাস্থ্য ভালো থাকে ও উচ্চ রক্তচাপের ঝুঁকি কমে। কিন্তু খাবারের পাশাপাশি রূপচর্চাতেও দই হতে পারে আদর্শ। এখানে ত্বক ও চুলের সৌন্দর্যে দইয়ের কিছু ব্যবহার উল্লেখ করা হলো।

এক্সফোলিয়েটিং মাস্ক তৈরি করতে: প্রাকৃতিক উপায়ে ত্বকের যত্ন নিতে চান? তাহলে দই আপনার জন্য অন্যতম সেরা উপকরণ হতে পারে। স্টাইল ক্রেজ ডটকমের প্রতিবেদনে মুখমণ্ডলে সাধারণ দই প্রয়োগ করে ১০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। দইয়ের ল্যাকটিক অ্যাসিড ত্বককে আর্দ্র করে ও প্রশান্তি দেয়। আপনি আর্দ্রতার মাত্রা বাড়াতে চাইলে দইয়ের সঙ্গে এক চা-চামচ মধু ও ওটস মেশাতে পারেন।

চুলের রুক্ষতা দূর করতে: রুক্ষ চুলের জন্য দই বিশেষ সহায়ক হতে পারে। ক্রাঞ্চি বেটি ডটকমের প্রতিবেদনে চুলের রুক্ষতা দূর করতে দই, কোকোয়া পাউডার ও মধু একত্রে ব্যবহার করতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। এক কাপ সাধারণ দই, দুই টেবিল চামচ কোকোয়া পাউডার ও দুই টেবিল চামচ মধু মিশিয়ে হেয়ার মাস্ক তৈরি করতে পারেন। এ মাস্ক চুলে ৩০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

প্রাকৃতিক হেয়ার ডাই হিসেবে: ব্লিচের ব্যবহার ছাড়াই চুলকে হাইলাইটস করা বা রঙে ভিন্নতা আনার অন্যতম প্রাকৃতিক উপায় হচ্ছে লেবুর রস ও দইয়ের মিশ্রণ। এক কাপ দইয়ে দুই টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে চুলে প্রয়োগ করে ৩০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। আপনার চুলে সফট ও গোল্ডেন হাইলাইটস আসবে।

পায়ের যত্ন নিতে: আমাদের শরীরের অন্যতম অবহেলিত স্থান হচ্ছে পা। আর নয় অবহেলা, পায়ের যত্ন নিতে ইউ বিউটি ডটকমের প্রতিবেদনে দই ও আখরোট বাদাম ব্যবহার করতে পরামর্শ দেয়া হয়েছে। দই ও আখরোট বাদামের প্রাকৃতিক স্ক্রাবে পা কোমল ও মসৃণ হয়। অর্ধকাপ আখরোট বাদামকে গুঁড়া করে এককাপ দইয়ে মিশিয়ে আপনার পা স্ক্রাব করে ধুয়ে ফেলুন।

ব্রণের চিকিসা হিসেবে: প্রদাহিত ব্রণ প্রশমিত করতে দই সহায়ক ভূমিকা পালন করতে পারে। আপনি সরাসরি ব্রণের স্থানে দই লাগাতে পারেন অথবা খেতেও পারেন। প্রদাহরোধী প্রতিক্রিয়া বাড়াতে চাইলে আপনার দইয়ে ১/৪ চা-চামচ হলুদ মেশাতে পারেন।

স্কিন টোনার হিসেবে: সাধারণ দই আপনার জন্য চমৎকার স্কিন টোনার হতে পারে। আপনার ত্বকে বিবর্ণতা, রোদে পোড়া দাগ অথবা ব্রণের দাগ থাকলে দই ব্যবহার করে কমাতে পারেন। স্কিন টোনার তৈরি করতে তিন টেবিল চামচ দইয়ে এক চা-চামচ লেবুর রস মিশিয়ে নিন। এরপর আপনার মুখমণ্ডলে প্রয়োগ করে ৩০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন।