সব রেকর্ড ভেঙে ভারতে একদিনে ১ লাখ ৮৫ হাজার আক্রান্ত

কোভিড-১৯ মহামারিতে বিপর্যস্ত ভারত। করোনা দ্বিতীয় ঢেউয়ে দেশটিতে রোজ শয়ে শয়ে মানুষ মারা যাচ্ছেন।  দৈনিক সংক্রমণেও একের পর এক রেকর্ড গড়ে যাচ্ছে দেশটি। গত ২৪ ঘণ্টায় ১ লাখ ৮৫ হাজার করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন। করোনা সংক্রমণের এক বছরেরও বেশি সময় ধরে এত মানুষ আর কোনো দিন আক্রান্ত হয়নি।  ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এই খবর দিয়েছে এনডিটিভি।

ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ১ লাখ ৮৫ হাজার ৩৭২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। মারা গেছেন ১০২৭ জন, যা গত ৬ মাসের মধ্যে রেকর্ড মৃত্যু। 
 
এদিকে ওয়ার্ল্ডওমিটারসের বুধবার সকালের তথ্যনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ১ লাখ ৮৫ হাজার ২৪৮ জন শনাক্ত হয়েছে যা এ যাবৎকালের সর্বোচ্চ।

একই সময়ে মারা গেছেন ১ হাজার ২৬ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা ১ লাখ ৭২ হাজার ১১৫ জনে দাঁড়িয়েছে।

মোট ১ কোটি ৩৮ লাখ ৭১ হাজারের বেশি সংক্রমণ নিয়ে বৈশ্বিক তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে দক্ষিণ এশিয়ার দেশটি। অবশ্য মৃত্যুতে তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে ভারত।  দেশটিতে করোনা থেকে সুস্থ হয়েছে ১ কোটি ২৩ লাখ মানুষ।

সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্য মহারাষ্ট্রে আগামী ১৫ দিনের জন্য জারি করা হয়েছে জনতা কারফিউ। করোনা সংক্রমণ রুখতে বুধবার রাত ৮টা থেকে ১৪৪ ধারা জারি করা হচ্ছে গোটা রাজ্যে।

মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরে বলেছেন, ‘গত বছরের থেকেও ভয়াবহ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে রাজ্যজুড়ে। ...আর সময় নষ্ট করা সম্ভব নয়। এবার সমস্ত পরিকাঠামো ভেঙে পড়বে।’

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে করোনাভাইরাসের উত্থান। এটি বিশ্বের ২১৩ টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে। এটিকে বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।