গাজীপুর সিটি করপোরেশনের বাজেট ঘোষণা

গাজীপুর সিটি করপোরেশনের ২০২০-২১ অর্থবছরের জন্য ৫ হাজার ৭ কোটি ২১ লাখ ২৮ হাজার টাকার বাজেট প্রস্তাবনা ঘোষণা করা হয়েছে। প্রস্তাবিত এ বাজেটে ব্যয় ধরা হয়েছে ৪ হাজার ৫৬৭ কোটি ১১ লাখ ৭৮ হাজার টাকা।  রোববার (৯ আগস্ট) নগরভবন মিলনায়তনে আনুষ্ঠানিকভাবে এ বাজেট ঘোষণা করেন মেয়র মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলম।

বাজেট ঘোষণার আগে মেয়র সিটি করপোরেশনের সব কাউন্সিলদের নিয়ে এক সভায় মিলিত হন। ওই সভায় ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট চূড়ান্ত করা হয়। সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী মজিবুর রহমান কাজলের সঞ্চালনায় সভার শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আমিনুল ইসলাম এবং অর্থ ও সংস্থাপন সংক্রান্ত স্থায়ী কমিটির সভাপতি কাউন্সিলর আব্বাস উদ্দিন খোকন। পরে উপস্থিত কাউন্সিলররা ২০২০-২১ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেট চূড়ান্ত করেন।

এসময় মেয়র জাহাঙ্গীর আলম বলেন, করোনা ভাইরাস মহামারির কারণে ২০১৯-২০ অর্থবছরে রাজস্ব আয়ের লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ হয়নি। তহবিলের সীমাবদ্ধতা থাকা সত্ত্বেও সিটি করপোরেশনের রাজস্ব তহবিল হতে রাস্তাঘাট নির্মাণ ও মেরামত করার জন্য সরকারি বরাদ্দ ও রাজস্ব তহবিল থেকে প্রায় ৩০০ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রস্তাব রাখা হয়েছে।

মেয়র বলেন, বিভিন্ন জোনের প্রধান সংযোগ সড়ক প্রশস্তকরণসহ নর্দমা ও ফুটপাত নির্মাণ শীর্ষক প্রকল্পে ৩ হাজার ৮২৮ কোটি টাকার রাস্তা ও ড্রেন নির্মাণ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে। অত্র প্রকল্পের ভূমি অধিগ্রহণের জন্য টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে। জনগণের চলাচলের জন্য বিভিন্ন রাস্তা প্রশস্ত করতে গিয়ে অনেকে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন। ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারকে ২০১৯-২০ অর্থবছরে প্রায় ৬০ কোটি টাকা অনুদান দেওয়া হয়েছে। ২০২০-২১ অর্থবছরে ক্ষতিগ্রস্তদের অনুদান বাবদ ১০০ কোটি টাকা ব্যয়ের প্রস্তাব রাখা হয়েছে। গাজীপুরের প্রায় দেড়হাজার মসজিদের খতিব, ইমামদের জন্য বছরে ১৪ হাজার টাকা করে সম্মানি দেওয়ারও উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

২০২০-২১ অর্থবছরের বাজটে হাসপাতালের জন্য অ্যাম্বুলেন্স ক্রয়ে ৫ কোটি টাকা, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান প্রতিষ্ঠা করতে ৫০ কোটি টাকা, নগরীর ৮টি জোনে কবরস্থান নির্মাণের জন্য ৫০ কোটি টাকা, গুণিজনদের সম্মাননা বাবদ ৫ কোটি টাকা এবং সাংবাদিকদের পেশাগত উন্নতি ও সার্বিক মঙ্গলার্থে ৩ কোটি টাকা বরাদ্দ রাখা হয়েছে।